সার বিক্রির ডিলার নিয়োগ পাবেন যেভাবে!

ফসল উৎপাদনের জন্য ভালো মানের সার অপরিহার্য। সরকার নিজস্ব উদ্যোগে সার উৎপাদন করেন বা বিদেশ থেকে আমদানি করে। এই সার কৃষক যেন সহজে সংগ্রহ করতে পারে সেই জন্য সরকার ডিলার ও খুচরা বিক্রেতা নিয়োগ করে থাকে। সরকারি এই সেবার মাধ্যমে সারের ডিলার ও খুচরা বিক্রেতা নিয়োগ করা হয়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে ডিলার নিয়োগ দেয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেয়া হয়। বিজ্ঞাপন অনুসারে ডিলার হতে আগ্রহী ব্যবসায়ীকে বিজ্ঞপ্তি অনুসারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করতে হবে।

সার ও বীজ মনিটরিং কমিটি আবেদনের প্রেক্ষিতে সরজমিনে পরিদর্শন করে প্রতিবেদন পেশ করবেন। বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে প্রতি ইউনিয়নে ডিলার শূন্য থাকা সাপেক্ষে একজন পাইকারি বিক্রেতা ও একজন খুচরা বিক্রেতা নিয়োগের ব্যবস্থা করেন।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: ক. আবেদনপত্র খ. ৫,০০০/- টাকার ট্রেজারি চালান গ. ট্রেড লাইসেন্স সনদপত্রের সত্যায়িত কপি ঘ. গুদাম/দোকানের রেকর্ডপত্রের সত্যায়িত কপি ঙ. আবেদনকারীর ০২ কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি চ. জাতীয় পরিচয়পত্র/নাগরিকত্বের সনদ ছ. পাইকারির ক্ষেত্রে আয়কর সনদপত্রের সত্যায়িত কপি জ. আইনানুসারে অঙ্গীকারনামা ঝ. নিজস্ব ঘর না হলে ভাড়ার চুক্তিপত্র ঞ. খুচরা ৩০,০০০/- ও বিসিআইসি ডিলার-দুই লক্ষ টাকা জামানত।

প্রয়োজনীয় খরচ: পাইকারি সার ডিলার নিয়োগ-দুই লক্ষ টাকা জামানত, খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ-ত্রিশ হাজার টাকা জামানত। সেবার সুবিধা: বৈধভাবে সার ব্যবসা করা যায়। সহজে কৃষকদের মাঝে সার বণ্টন করা যায়।

আবেদনের সময়: সারা বছর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা: ১. উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ২. অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ৩. কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা। সেবা না পেলে কার কাছে যাবেন: উপ-পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, জেলা কার্যালয় বিস্তারিত তথ্যের জন্য: প্রয়োজনীয় ওয়েব সাইট : www.dae.gov.bd

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।

Check for details
SHARE