এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট ব্যবসায় পিআই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন!

আমদানী-রপ্তানী বানিজ্যে পিআই নিয়ে আনেকে হয়তো জানেন, আবার আনেকে জানলেও ভালো করে জানেন না। এই পোস্টে PI (Proforma Invoice) সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করবো। PI ( Proforma Invoice ) হলো আপনি যখন প্রথম কোন সেলার থেকে কোন পণ্য ক্রয় করতে চাইবেন এবং তাদের সাথে দরদাম ফাইনাল করবেন, তখন আপনাকে সেলার এটা প্রদান করবে।

এই পি আই নিয়ে আপনি ব্যংকে জমা দিলে ব্যাংক আপনাকে একটি এলসি করার অনুমতি দিবে । অর্থাৎ এটা আমদানী করার একটা দলিল৷ PI (Proforma Invoice) তে কি কি বিষয় থাকে? পি আইতে সাধারনত প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা থাকে, পন্যের বিবরণ ইত্যাদি থাকে। সেলারের ঠিকানা এবং তাদের ইনভয়েস নাম্বার পি আই তে খুবই জরুরি৷

কেননা আপনি যখন এলসি করবেন তখন ইনভয়েস নাম্বারটি দিতে হবে। পি আই এর তারিখ অর্থাৎ, কোন তারিখে PI (Proforma Invoice) টি ইস্যু করা হয়েছিলো। তবে বিভিন্ন কম্পানি বিভিন্ন ফরমেটে PI (Proforma Invoice) টি তৈরি করে থাকে। কিন্তু তথ্য মোটামুটি একই রকম ৷

পি আই এর ডেসক্রিপশনে পন্যের বিস্তারিত বিবরন, এরপর পরিমান, নেট ওয়েট এবং গ্রোস ওয়েট, তারপর ইউনিট প্রাইস তারপর টোটাল এ্যামাউন্ট উল্ল্যেখ থাকে । কোন পন্যটি আনবেন তার বিষদ একটি বর্ননা ডেসক্রিপশন ঘরে থাকতে হবে । কি পরিমান আনবেন তা থাকতে হবে। পন্যের নেট ওয়েট থাকতে হবে । নেট ওয়েট হলো আপনি যে বক্সে করে পন্য আনবেন তার ওজন ব্যতিত মোট ওজন।

পি আই তে পন্যটির ইউনিট প্রাইস থাকতে হবে । তারপর ফ্রেইট চার্জ যোগ করে আর্থাৎ পন্যটির আমদানী ভাড়া সহ যোগ করে মোট দাম লেখা থাকে। এবার পি আই এর শেষের আংশ নিয়ে আলোচনা করব। শেষের আংশে ট্রমস্ এবং কন্ডিশন নিয়ে লেখা থাকে। প্রথমে পরিমান উল্লেখ থাকবে, তারপর লেখা থাকবে শিপমেন্ট কবে করা হবে ।

তারপর কোন পোর্টে শিপমেন্ট করা হবে সেটাও লেখা থাকবে। মোট পন্য কত প্যাকেজ হবে, ইনসুরেন্স এবং ভেলেডিটি অথাৎ PI (Proforma Invoice) টি কত তারিখ পর্যন্ত ভেলেডিটি থাকবে সেটি লেখা থাকবে। তারপর থাকবে ইনটারমিডিয়েরি ব্যাংকের নাম ৷ অর্থাৎ যে ব্যাংকের মাধ্যমে এল সি টাকা প্রদান করা হবে তার একাউন্ট নাম্বার , সুইফট্ কোড ইত্যাদি ৷

তারপর বেনিফেসিয়ারি ব্যাংকের নাম এবং এ্যাকাউন্ট নাম্বার থাকবে এবং তাদের ইনভয়েস নাম্বার ও এলসি নাম্বার থাকবে। পি আই কিন্তু আমদানীকারকের কাছে খুবই গুরুত্ব পুর্ণ ৷ ব্যাংকে সাবমিট করার আগে ভালো করে চেক করে নিবেন৷ প্রয়োজনে শংশোধন করে নিতে পারেন৷ কিন্তু সাবমিট করে ফেললে ব্যাংক সর্ভারে ডাটা এন্ট্রি করে ফেললে তা শংশোধন করার কোন উপায় থাকবেনা৷

পি আই অনুযায়ী প্যাকিং লিষ্ট, ইনভয়েস হতে হবে৷ কোন মতেই পন্যের টোটাল দাম পি আই থেকে কম হওয়া চলবেনা ৷ যদি ইনভয়েসে দাম কম দেন, তবে কাষ্টমসের সফটওয়ারে ডকুমেন্ট এন্ট্রি দিতে পারবেন না৷ তথ্যসূত্র: ইববাই ডটকম।

Check for details
SHARE