ISO সার্টিফিকেট বিষয়ে বিস্তারিত (ভিডিও সহ)

ইন্টারন্যাশানাল অর্গানেজশন ফর স্ট্যার্ন্ডাইজেশন এর সংক্ষিপ্ত রুপ হচ্ছে ISO। ১৯৪৭ সালে ISO প্রতিষ্ঠিত হয়। সুইজারল্যান্ডের, জেনেভা শহরে এর সদর দপ্তর অবস্থিত।
ISO মূলত বিভিন্ন ধরনের স্ট্যার্ন্ডাড ডেভেলপ করে থাকে। বিভিন্ন দেশে রেগুলেটরি এ্যাক্রিডেশন বডি আছে মূলত ঐসব সংস্থা থেকেই এ্যাক্রিডেশন সনদ নিয়ে বিভিন্ন সার্টিফিকেশন বডি ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ দিয়ে থাকে।
এবার আসা যাক ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদের কেন নেওয়া হয় সে প্রসংঙ্গে। ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ মূলত বিভিন্ন অর্গানেজশন / প্রতিষ্ঠান তাদের ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে নিয়ে থাকে। এছাড়াও আরো কিছু বিষয় আছে। যেমন-
বিভিন্ন আন্তর্জাতিক টেন্ডারে অংশগ্রহণ, প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা আনয়ন, প্রতিষ্ঠানকে স্ট্যাবল রাখা, প্রতিষ্ঠানের ইমপ্লয়ীদের দায়িত্ব এবং দক্ষতা বৃদ্ধি, ফাইন্যান্সিয়াল ক্ষতি প্রতিরোধ, প্রতিষ্ঠানের ব্রান্ড ভ্যালু বৃদ্ধি করা ।

ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদের মধ্যে ৯০০১ ( কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম), ১৪০০১ ( ওকুপেশানাল হেলথ এন্ড সেফটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সার্টিফিকেশন), ২২০০০ ( ফুড সেফটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সার্টিফিকেশন ), ১৪০০০ ( ইনভারমেন্টাল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সার্টিফিকেশন) সনদ ফ্যাক্টরি এবং বিভিন্ন কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে বহুল প্রচলিত।

ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ ৯০০১ ( কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম) মূলত ডকুমেন্টশন, প্রয়োগ এবং সার্টিফিকেশন এই তিনটা ধাপে পরিচালিত হয়। এ সনদের আবশ্যিক শর্ত্গুলো ISO সিস্টেম সার্টিফিকেশন ১৭০২১ দ্বারা সংজ্ঞায়িত করা। এ সনদ সাধারনত তিন বছর মেয়াদী প্রদান করা হয় এবং পিরিয়ডিক অডিট সম্পাদিত হয় ( সাধারনত বছরে একবার)।

আমাদের দেশে মূলত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ISO ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের বিভিন্ন স্ট্যান্ডার্ডের সনদ নিয়ে থাকে, যার মধ্যে কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ৯০০১ : ২০০৮ টাই বেশি প্রচলিত।বাংলাদেশে নিজস্ব কোনো ISO স্ট্যার্ন্ডাড সার্টিফিকেশন বডি নেই, তবে বিভিন্ন ইউ.কে. , ইউ.এস. বেইসড সার্টিফিকেশন বডির এজেন্ট আছে, তারমধ্যে URS (United Registrar of systems) Certification, Bureau Veritas, DAS certification, BAB (The British Assessment Bureau), Intertek, SGS অন্যতম।

UKAS (United Kingdom Accreditation Service) হচ্ছে ইংল্যান্ডের রেগুলেটরি এ্যাক্রিডেশন বডি যার কাছ থেকে বিভিন্ন সার্টিফিকেশন বডি যেমন URS , DAS Certification, BAB এ্যাক্রিডেশন নিয়েই তবে বিভিন্ন ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ দিয়ে থাকে।

আন্তর্জাতিক বাজারে পন্যের বাজারজাত করণে ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদের প্রয়োজন হয়। এজন্য অবশ্যই যেসব সার্টিফিকেশন বডির এ্যাক্রিডেশন আছে তাদের কাছ থেকেই সনদ নিতে হবে। এ ধরনের সার্টিফিকেটে সার্টিফিকেশন বডি এবং এ্যাক্রিডেশন বডি দুই পক্ষেরই লোগো থাকে।

উদাহারণ-স্বরুপ কেউ যদি URS (United Registrar of systems) Certification থেকে ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ ৯০০১ নিয়ে থাকে তবে সে প্রতিষ্ঠান একদিকে URS এবং অন্যদিকে এ্যাক্রিডেশন বডি UKAS (United Kingdom Accreditation Service) এর লোগো সম্বলিত সনদ পাবে এবং সেটা যেকোনো প্রযোজনে ব্যবহার করতে পারবে। ,

ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ যাদের কাছ নেবেন তাদের সর্ম্পকে সনদ ফি ছাড়াও যে জিনিসগুলো জেনে নিতে হবে

-কাস্টমার কেয়ার

-সনদের মেয়াদকাল

-এ্যাক্রিডেশন

-পুনরায় সার্টিফিকেশন অডিট ফি

– ISO ট্রেনিং ইত্যাদি।

এবার আসা যাক আসল ব্যাপার অডিট নিয়ে। অডিট হচ্ছে স্ট্যার্ন্ডাড সনদের প্রয়োজনীয় / আবশ্যিক বিষয়গুলোর ভেরিফিকেশন, যেমন পর্যেবেক্ষণ/পরীক্ষা ইত্যাদি।

অভ্যন্তরীন অডিট যেটা মূলত প্রতিষ্ঠানের ভেতরে বিভিন্ন পদ্ধতিতে করা হয়, যার প্রধান উদ্দেশ্যেই থাকে সার্টিফিকেশন বডি কর্তৃক প্রদত্ত স্ট্যার্ন্ডাডকে মিলিয়ে দেখা, কোথাও কোনো গ্যাপ আছে কিনা ইত্যাদি। সবশেষে সার্টিফিকেশন বডি কর্তৃক অডিট যেটার উপরিই নির্ভর করে থাকে ISO স্ট্যার্ন্ডাড সনদ প্রাপ্তি।

Check for details
SHARE