সফলতার জন্য সীমাবদ্ধতা থেকেই সুযোগ করতে সৃষ্টি হয়

 

জীবনে বড় হতে চাই। আবার প্রতিদিন ভর দুপুর পর্যন্ত ঘুমাতে চাই। বড় বড় স্বপ্ন দেখি আর রোজ আগামীকালের জন্য আজকের কাজগুলো ফেলে রাখি। চাই সফলতার শীর্ষে অবস্থান করতে কিন্তু বিনা পরিশ্রমে। এভাবে আর কত দিন? জেগে ঘুমালে কারও ঘুম ভাঙানো সম্ভব নয়। স্বপ্নগুলোকে প্রান দাও। লালন কর আগামী দিনগুলোর জন্য। কারন তোমার মাঝে লুকিয়ে আছে এমন কিছু যা বদলে দিতে পারে পুরো বিশ্বটাকে।

অল্প শিক্ষিত এক লোক সিকিউরিটি গার্ডের চাকুরির ইন্টারভিউ দিতে উপস্থিত হয় প্রতিষ্ঠিত একটি অফিসে। ইন্টারভিউ বোর্ডের কর্তা ব্যাক্তিরা তাকে তিরস্কার করে বিদায় দেয়। ই-মেইল এ্যাকাউন্ট না থাকায় তার চাকুরিটি আর হয় না। অফিস থেকে বের হয়ে তার পকেটে থাকা পঞ্চাশ টাকার একমাত্র নোটটি থেকে দশ টাকার রুটি কলা খায়।  বাকি টাকা দিয়ে পাশের বাজার থেকে কয়েক আঁটি ডাঁটা শাক কিনে গলির মোড়ে দাঁড়িয়ে বিক্রি করা শুরু করে।

বার কয়েক এভাবে এনে  বিক্রি করে দিন শেষে তার পকেটে দুইশত টাকা জমে। সেই টাকায় পরদিন থেকে আবারও গলির মোড়ে। মাস দুয়েক যেতে না যেতেই ফুটপাত থেকে ছোট্ট একটি দোকানে। পরিধি বাড়াতে বাড়াতে এই শহরেই এখন তার বেশ কিছু ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোর। সেই সাথে বড় বড় আরও কিছু ব্যবসা। দামী দামী গাড়ি আর অভিজাত এলাকায় বাড়ীর মালিক।

সেদিন তার চাকুরিটা হলে আজ পর্যন্ত তাকে হয়ত সিকিউরিটি গার্ড হয়েই থাকতে হত। বড় জোড় এতদিনে না হয় একটা প্রমোশন পেয়ে সিকিউরিটি ইনচার্জ হত। কিন্তু এখন অনেক সিকিউরিটি গার্ড তাকে উঠতে বসতে সালাম ঠুকে। সেদিনের সেই দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া লোকটি আবিস্কার করতে পেরেছিল ই-মেইল এ্যাকাউন্ট না থাকার সুযোগ। কোন কিছু না থাকাটা পাপ নয়। বরং সুযোগ থাকা সত্বেও সেটি ব্যবহার করতে না পারাটা ব্যর্থতা।

সুযোগের জন্য অপেক্ষা করা বোকামী। সুযোগ তৈরী করতে পারাটাই যোগ্যতা। বেলা করে ঘুমানোর মজা আর সূর্যোদয়ের সৌন্দর্য কখনও একসাথে উপভোগ করা সম্ভব নয়। পৃথিবীর সমস্ত সুযোগ তোমার জন্য অপেক্ষা করছে। প্রতিকুলতাকে অনুকুলে আনাই বুদ্ধিমত্তা। সময়ের স্রোত কাজে লাগাতে পারলে জীবনে সফলতা পাবে। না হলে ব্যর্থতা আর হতাশার গ্লানি নিয়ে তোমাকে মরতে হবে। এ পৃথিবীর কাছে তুমি শুধুই জঞ্জাল ছাড়া কিছু হবে না তখন।

যুদ্ধের ময়দান থেকে যারা বিজয়ী বেশে ফিরে আসে জয়ের মালা তাদের গলায় শোভা পায়, পলাতকের গলায় নয়। যারা পরিশ্রম করে সততার সাথে তার সম্মান থাকে সবার উপরে। আর ধৈয্য তো সেই মানুষকে পরিশুদ্ধ করে যে অপেক্ষার অানন্দ উপভোগ করতে জানে। প্রতিটা কাজের লক্ষ থাকে। লক্ষ বিহীন পথ চলাতে পথ হারানোর ভয় থাকে।

আগুনে পুরলে সোনা খাটি হয়। ব্যর্থতার পরই সফলতার হাসি হাসতে হয়। হীরকের উজ্বলতা তারই শোভা পায় যার আলোর তীব্রতা সহ্য করার ক্ষমতা আছে। রোম যেমন একদিনে তৈরী হয়নি তেমনি সফলতাও একদিনে আসবে না। সফলতার পেছনে লেগে থাকতে হবে। আর সফলতার দেখা পেলে তা  উৎযাপনের জন্য মাঝে মাঝে পার্টি দিতে হবে।

শুভকামনা রইল সকলের জন্য। উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকমের আপডেটগুলো নিয়মিত পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে রাখুন। লেখাটি সম্পর্কে আপনাদের মতামত ও পরামর্শ জানান কমেন্ট করে। ধন্যবাদ সকলকে। শুভেচ্ছা নিরন্তর।

 

মোটিভেশনাল লেখক:
মাসুদুর রহমান মাসুদ/ উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম।

Check for details
SHARE