ভিন্ন আইডিয়ায় লন্ডী স্থাপন করে সফলতা

1505315_631833273587131_6875746645058459435_nগত সপ্তাহে বলে ছিলাম আপনাদের সফলতার গল্প তুলে আনব আমরা। বলব তাদের কথা যারা ভিন্ন আইডিয়া নিয়ে কাজ করে সফলতার পথে হাঁটছেন। তাদেরই একজন নারায়ন দাস তপন। একটা নতুন আইডিয়া নিয়ে কাজ করতে কতটা বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিতে হয় তা জানতে সকলকে আমন্ত্রন জানাচ্ছি আমি মাসুদুর রহমান মাসুদ।

২০১৩ সাল। ব্যস্ত নগরীর ব্যস্ত মানুষ গুলোর কথা চিন্তা করতে করতে হটাৎ করেই আইডিয়াটা মাথায় আসে। বাসায় কাপড় ধোয়া যে কি ঝামেলা তার উপর আয়রন করা। আর সেই সাথে কাপড় নিয়ে রাস্তার মোড়ে মোড়ে দৌড়ানো। কাপড় ধুতে হয়তো পরিবার অথবা কাজের বুয়ার সহযোগিতা নিতেই হয়। কিন্তু তারপরও কি কাপড় পুরোপুরি পরিষ্কার হয়। আর কাপড়ের রং ঝলসে যাওয়ার সমস্যা তো আছেই। সাথে লন্ড্রি থেকে যদি কাপড় হারিয়ে যায় তা আর ফেরত মিলে না। আর এতগুলো সমস্যা সমাধানের সাথেই মাথায় আসে তার অনলাইন লন্ড্রী সার্ভিস আইডিয়াটি।

অনলাইন এর মাধ্যমে বাসা থেকে ময়লা কাপড় সংগ্রহ করে ধুয়ে পরিস্কার, আয়রন ও প্যাকিং করে সেই কাপড় আপনার বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কাজ করে আয় করা সম্ভব এ ধারনাটিকে সফলতার রুপ দিতে হাতে নেন একটি সাহসী উদ্যোগ। তার এ উদ্যোগের ধারনাটি নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন সকলের সাথে। কিন্তু সবার একটাই কথা সম্ভব নয়। আর সেই সম্ভব নয় কথাটার পিছনে তিনি দেখতে থাকেন আশার আলো। যখন তিনি এ ধারনাটি মাথায় আনেন তখন আমাদের দেশে ইন্টারনেটের ব্যবহার কতটা ছিল তা আমার থেকে আপনারাই ভাল বলতে পারবেন।

থেমে থাকেননি তার আইডিয়া মাথায় নিয়ে। কি করে সফল করা যায় তার জন্য একটা প্রোজেক্ট দাড় করালেন। একটা বছর অক্লান্ত পরিশ্রমের পর দাড় করালেন তার আইডিয়ার প্রোজেক্ট ফাইল। এবার কি ভাবে সম্পাদন করবেন কাজ। দেশের বাজারে প্রচলিত ওয়াশিং প্লান্ট, আয়রন পদ্ধতি ও ব্যবহৃত ডিটারজেন্টের বাইরে গিয়ে তার কাজ শুরু করলেন। আমদানি করলেন ‍বর্হিবিশ্ব থেকে সব কিছু। সেই সাথে অনলাইনে তার সেবা পৌছে দেওয়ার জন্য তৈরী করলেন ই-কমার্স সাইট।

যাত্রা শুরু হল এক্সপার্ট ক্লিন লন্ড্রী। প্রথমে মিরপুর এলাকা নিয়ে ডেলিভারীর ব্যবস্থা থাকলেও এখন সারা ঢাকায় ব্যবস্থা নিয়েছেন। পরিকল্পনা সারা বাংলাদেশ ব্যাপী ডেলিভারী করা। শুরুর পথে নানা সময় নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে এখন সফলতার পথে এক্সপার্ট ক্লিন লন্ড্রী। মাত্র একটি ফোন কল। প্রতি কেজি কাপড় মাত্র ৯৯ টাকায় বাসা থেকে সংগ্রহ করে ধুয়ে আয়রন করে বাসায় পৌছে দিয়ে মূল্য প্রদানের ব্যবস্থা রেখেছে এ প্রতিষ্ঠানটি। একই সাথে অাধা টন ক্ষমতা সম্পন্ন ওয়াশিং প্লান্টের কারখানা চালানো ও ডেলিভারীর সাথে যুক্ত করেছেন এক ঝাঁক উদ্যোমী তরুন প্রাণকে। যাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে নতুন আইডিয়ার সাথে নতুন উদ্যোক্তার সাথে।

প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও সিইও নারায়ন দাস তপনের সাথে আলাপ চারিতায় তিনি বলেন সফলতার জন্য চাই একটি মাত্র উদ্যোগ। আর তার জন্য চাই একগ্রতা ও কঠোর পরিশ্রম। ভিন্ন আইডিয়িায় কোন কিছু করার ঝুকি নিয়ে সঠিক পরিকল্পনায় আগাতে পারলে সফলতা পাওয়া অনেকটাই সহজ হয়। তরুনদের হাতে আগামী। আর তাদের উচিৎ উদ্যোমী হয়ে এগিয়ে আসা নতুন নতুন আইডিয়া বাস্তবায়নে। শিক্ষিত হয়েছি বলে কাজকে অসম্মান করার কিছু নাই। কোন কাজ ছোট নয়। তাই লজ্জা নয় কাজ নিয়ে গর্ব করা উচিৎ।

সকলের জন্য শুভকামনা জানিয়ে বিদায় নিব। তার আগে একটি কথা স্মরন করিয়ে দিতে চাই। আপনাদের সফলতার গল্প তুলে আনবো আমরা। আর তা তুলে ধরব আগামী প্রজন্মের কাছে। জানান আমাদের কে এই ঠিকানায়-uddoktarkhoje@gmail.com মেইল করে। বিস্তারিত জানতে ফোন করতে পরেন ০১৭৩৫-২৮৪৬১৭নাম্বারে। ধন্যবাদ সকলকে। আমাদের পেইজের সাথে থাকুন লাইক দিয়ে। আর এই সফলতার গল্প অন্যদের জানিয়ে উৎসাহিত দেওয়ার জন্য শেয়ার করতে ভুল করবেন না……

 

 

Check for details
SHARE