ভাঙতে না পারলে গড়তে শিখবেন কিভাবে…?

গড়তে হলে ভাঙা জরুরী। ধ্বংস স্তুপের উপর গড়ার মজাই আলাদা। যখন আপনি উপলব্ধি করতে পারবেন তখন আপনি ভাঙতে দেরী করবেন না। এমন কিছু বিষয় যা ভাঙতেই হবে। যদি জীবনে বড় কিছু করতে চান। পৃথিবীর সুখী মানুষদের দলে ভিড়তে চান।

সবার প্রথমে নিজের মনের মধ্যে লুকিয়ে থাকা হতাশার দেয়ালটা ভেঙে ফেলুন। অতীত ভুলে যান। কি পাননি, কি হারিয়েছেন তার হিসাব করা বাদ দিন। মনের মধ্যে জমে থাকা সবচেয়ে বড় যে দেয়াল পাহাড় সম উচু হয়ে আছে হাতুরি দিয়ে সবার আগে তা ভাঙুন। সেই ভাঙা স্তুপের মাঝেই গড়ে তুলুন আত্মবিশ্বাস। আপনি পারবেন। আপনার মধ্যে সেই ক্ষমতা আছে। সবকিছু আপনার বিপরীতে থাকলেও আপনি হেরে যাওয়ার মত মানুষ নন। বিজিতের বেশে নয় বিজয়ীর বেশেই আপনি নিজেকে দেখবেন।

ভয়ের দরজায় আঘাত করে ভেঙে ফেলুন। ভয় আপনার মনকে সংকীর্ন করে রেখেছে। অজানা কোন কিছুর সামনা সামনি হতে ভয় পান। মনগড়া ফলাফল ভেবে নিয়ে শংকিত হয়ে উঠেন। পরাজয়ের ভয়ে যুদ্ধে না নামার মত বোকা হয়ে থাকলে আপনি নাকে সরিষার তেল দিয়ে ঘুমাতে পারেন। আপনাকে কেউ জাগাতে আসবেনা। ভয়কে জয় করতে না পারলে আপনি কখনোই জিততে পারবেন না।

হিংসাত্বক মানুষিকতাকে ভেঙে ফেলে সহযোগীতার সমতলে এসে দাঁড়ান। ষ্টার প্লাস, ষ্টার জলসার নায়ক বনে যাওয়ার ইচ্ছে না থাকলে ফিরে তাকান। আপনার বন্ধু গাড়ি বাড়ি হাড়ির মালিক বনে গেছেন। আপনি কিছুই করতে পারেন নি। শুধু শুধু তার কথা চিন্তা করে নিজের মনকে বিষিয়ে তোলার কি আছে। হিংসার আগুনে জ্বলে পুড়ে মরার চেয়ে এক গ্লাস চিরতার পানি খেয়ে লেগে পড়ুন কাজে। সহযোগীতার বন্ধনে গড়ে তুলুন আপনার ভিত। নিশ্চিত থাকুন আপনি পৃথিবীর সুখী মানুষদের একজন এই মুহুর্ত থেকে।

হ্যা ভেঙে না বলুন। অবাক হওয়ার কিছু নেই। না বলতে পারাও একটা বিশেষ গুন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে আপনাকে না বলতেই হবে। সবার মন যুগিয়ে আপনি কখনো চলতে পারবেন না। ধরুন আপনার অফিসের সবচেয়ে রাগী বস আপনাকে হুকুম করেছে একটা অন্যায় কাজ করতে। আপনি তাকে না বলতে পারলেন না। অন্যায় জেনেও কাজটি করলেন। কিছু দিন পর আপনার বস বদলী হল। তার স্থানেই এল নতুন বস। তিনি সবকিছু খতিয়ে দেখতে পেলেন অন্যায়টা আপনার দ্বারাই ঘটেছে। ফলাফল শাস্তি । সবার প্রথমে আপনাকেই পেতে হবে। না বলা শিখুন সব ক্ষেত্রে হ্যা বলতে যাবেন না। যা আপনার অসাধ্য সে ব্যাপারে হ্যা বলতে পারার মধ্যে কোন স্বার্থকতা নেই।

না না বাড়ি ভেঙে ফেলুন। একথা শুনে আবার নানা বাড়ির দেয়াল ভাঙতে যেয়েন না হাতুরি পেটা করে। হবে না, সম্ভব না, পারব না, এই না গুলোর যত রকমের সমষ্টি না না আছে তা ভেঙে ফেলুন। একবার না পরিলে দেখ শতবার। আপনাকে শতবার দেখতে হবে না। তার আগেই সফলতার মুখ দেখতে পারবেন। শুধু চেষ্টার সাথে ধের্য্য ধরে সামনের দিকে এগিয়ে যান। দেখবেন প্রতিটা দিন আগের দিনের থেকে সহজ হতে শুরু করেছে।
মোটিভেশনাল লেখক:
মোঃ মাসুুদুর রহমান (মাসুদ)
উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম।

Check for details
SHARE