চলছে বর্ষাকাল, ডেঙ্গু জ্বর থেকে সাবধান হোন এখনই…

চলছে বর্ষা ঋতু। আর এ সময় বৃষ্টি হবে না তা কি হয়? ভ্যাপসা গরমের মাঝেই হটাৎ রিমঝিম বৃষ্টি। আমাদের শরীর ও মনে ছুয়ে দেয় বাড়তি প্রশান্তি। বর্ষা মানেই প্রকৃতির এক অন্য রকম রূপে নিজেকে সাজিয়ে নেয়া। আর ভুলে ছাতা ছাড়া বাইরে বেড়িয়ে বৃষ্টিতে ভিজা কিন্তু মাঝে বিরক্তির কারনও হয়ে দাড়ায়। বিরক্তির থেকে আরও বড় বিষয়টা কিন্তু অন্যদিকে।

বর্ষার সময় যেখানে সেখানে পানি জমে থাকে। আর বেশ কিছু দিন ধরে জমে থাকা এ পানিতে জন্ম নেয় এডিস মশা। এই মশা সাধারণত দিনের বেলা কামড়ায়। যার কামড়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পড়েন অনেকেই।

চলুন জেনে নেই কিভাবে বুঝবেন আপনি ডেঙ্গু জ্বর এ আক্রান্ত হয়েছেন:

ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ:dengu-2

-জ্বর প্রথম দিনেই ১০৫ বা ১০৪ কাছাকাছি আসা।
-পুরা শরীর  ম্যাজ ম্যাজ করা।
-প্রচণ্ড মাথা ব্যাথা করা।
-পুরো শরীর হাড় ভেঙ্গে যাওয়ার মতো ব্যাথা করা। বিশেষ করে পিঠে ব্যাথা হয়।
-পুরো শরীরে লাল লাল ছোট ছোট চাকার মতো দেখা দেয়া।
-শরীর  জুড়ে রাশ বের হওয়া ।
-চোখের চারদিক তীব্র ব্যাথায় ছট ফট করা।
-জ্বরে রক্ত চাপ কমে এক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া।

এই লক্ষণ দেখা দিলে আপনার করণীয় কি:
-এমন কিছু দেখা দিলে জরুরী ভিত্তিতে ডাক্তার সাথে পরামর্শ করা।
-রক্ত পরীক্ষা করা।
-নরমাল স্যালাইন প্রচুর পরিমাণে খাওয়ানো।
-জ্বরের জন্য পারাসিটামল খেয়ে নেয়া।
-আপনার স্বাভাবিক খাবার গুলো নিয়মিত ভাবে খাওয়া।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে আপনার করনীয়: 13435805_1781340758770591_550759021_n

-ডেঙ্গুজ্বরের জীবাণু বহনকারী মশা দিনের বেলায় কামড়ায়। তাই দিনের বেলা মশারী টাঙিয়ে অথবা কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমাতে হবে।

-ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীকে অবশ্যই সবসময় মশারীর মধ্যে রাখতে হবে যাতে করে রোগীকে কোন মশা কামড়াতে না পারে।

-বাড়ির আশেপাশের ঝোপঝাড়, জঙ্গল পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।

-বাড়ির আশেপাশে ভাঙ্গা ফুলের টব, ভাঙ্গা ফুলদানি, অব্যবহৃত কৌটা, ডাবের খোসা, ভাঙ্গা বেসিন, অব্যবহৃত টায়ার, মুখ খোলা পানির ট্যাঙ্ক, প্লাস্টিকের প্যাকেট, পলিথিন এবং ঘরের আশেপাশে যেন পানি না জমে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীরা সঠিক চিকিৎসার মাধ্যমে সাধারণত ৫ থেকে ১৪ দিনের মধ্যে ভালো হয়ে যায়। ডেঙ্গু জ্বর হলে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। কিন্তু আপনাকে সচেতন থাকতে হবে সবসময়।

লেখক:
মাহবুবা খাতুন
পপুলার মেডিক্যাল কলেজ, ঢাকা।

Check for details
SHARE