ঘরে বানিয়ে নিন ময়েশ্চারাইজিং নাইট ক্রিম!

তরুনীদের প্রথম চাহিদা নাইট ক্রিম। সাধারনত রাতে শোবার সময় নাইট ক্রিম ব্যবহার করা হয়। এটি সারারাত ত্বকে পুষ্টি সরবরাহ করে। তাই নাইট ক্রিম টি হওয়া চাই ন্যাচারাল এবং কেমিক্যালমুক্ত। তেমনই এক কার্যকরি নাইট ক্রিম তৈরীর ফর্মূলা জানাবো আজ।

চলুন প্রথমেই জেনে নিই কি কি লাগবেঃ কাঠ বাদাম-৬/৭ টি, কাজু বাদাম-৪/৫ টি, খাটি গোলাপজল- পরিমানমত, টাটকা টকদই-২ টেবিলচামচ, এসেনশিয়াল ওয়েল-২-৩ ফোটা, ই ক্যাপ-২ টি, লেবুর রস, কাচের ছোট কৌটা-১ টি।

তৈরী পদ্ধতিঃ কাঠবাদাম ও কাজুবাদাম ত্বক মসৃন করতে সাহায্য করে এবং এই দুটি নাইট ক্রিমের মূল উপাদান। এজন্য কাঠবাদাম ও কাজুবাদাম কাচা দুধে ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। এবার সকালে খোসা ছাড়িয়ে নিন। খোসা ছাড়ানো বাদান ব্লেন্ডার/পাটায় পিষে নিন। খেয়াল রাখবেন যে পাত্রে তৈরী করবেন সেটি যেন পরিস্কার পরিচ্ছন্ন হয়।

এবার টক দই দিন। অবশ্যই পানি ছাড়া ঘন টক দই দিবেন। টকদই এ রয়েছে ফ্যটি এসিড ও অনেক পুষ্টি উপাদান। টকদই ত্বক পরিস্কার ও দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এরপর একে একে বাকি সব উপকরন দিয়ে দিন। সব শেষে লেবুর রস মিক্স করুন। এবার হালকাকরে ব্লেন্ডার এ ব্লেন্ড অথবা চামচ দিয়ে ভাল করে মিক্স করে নিন। দেখবেন মিশ্রণ টি ঘন হবে।এবার ফ্রিজে রাখুন ২ ঘন্টা। ব্যাস,ফ্রিজ এ হালকা জমাট বাধার পর তৈরী হয়ে গেল আপনার নেচারাল ও কেমিকেলমুক্ত নাইট ক্রিম।

সংরক্ষনঃ ১. অবশ্যই কাচের কৌটায় সংরক্ষন করবেন। ২.ফ্রিজে নরমালে রেখে ব্যবহার করবেন। ৩. উপাদান কোনটা আপনার ত্বকে সুট না করলে সেটি বাদ দিয়ে নেবেন। ৪.এটি একবার বানিয়ে ৭ দিন ব্যবহার করা যাবে।

ব্যবহারঃ এটি সাধারনত রাতে,ত্বক পরিস্কার করে লাগাবেন।সকালে ধুয়ে ফেলবেন।
উপকারিতাঃ এটি ত্বক মসৃন ও উজ্জল করবে।ত্বকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করবে।এই ক্রিম ব্যবহারে আপনার ত্বক থাকবে হেলদি ও দীপ্তময়। জেনে নিলেন নাইট ক্রিম বানানোর সহজ ও কার্যকরী উপায়।তবে ঘরে বসে বানিয়ে ট্রাই করুন এই ন্যাচারাল নাইট ক্রিম।

আনিকা আফরিন
উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম।

Check for details
SHARE