ক্লাইন্টকে সন্তুষ্ট রাখতে স্পষ্টবাদী হোন

প্রতিদিনকার ব্যবসায়িক কার্যক্রমের সবচেয়ে বড় অংশ মার্কেটিং। আর এই একটি বিষয়ে দক্ষতার সাথে কৌশলী হয়ে উঠতে পারলে ব্যবসায়ে সফলতা অর্জন অনেকাংশে সহজ হয়ে যায়। আপনার কাংখিত ক্রেতাকে খুজে বের করে তার নিকট বিক্রয় করতে পারলেই ব্যবসায়ের মুনাফা অর্জন নিশ্চিত করা সম্ভব।

একজন ক্লাইন্ট যার কাছে আপনি পন্য বা সেবা বিক্রয় করে মুনাফা অর্জন করছেন তার গুরুত্ব সবার প্রথমে। আপনার ক্লাইন্টের চাহিদার উপর সবচেয়ে বেশী মূল্যায়ন করতে হবে আপনাকে। কোন একজন ক্লাইন্টের সাথে আপনি যখন কথা বলছেন তার চাহিদার কথা সবার আগে মাথায় রাখুন। সেই সাথে প্রতিশ্রুত বিষয়টি আপনি রক্ষা করতে পারবেন কিনা সেটা নিশ্চত হোন।

আপনার ক্রেতা আপনার কাছ থেকে কি প্রত্যাশা করছে? আপনি আপনার ক্রেতাকে যে পন্যটি ডেলিভারীর প্রতিশ্রুতি প্রদান করছেন সেই পন্যটি কি সত্যিকার অর্থে তার কাংখিত চাহিদার সমমান সম্পন্ন? ক্রেতার সন্তুষ্টি নিয়ে আপনি পন্য বিক্রয় করতে পারলেই আপনার পরবর্তী সেবা সে গ্রহন করতে প্রস্তুত থাকবে। আপনার ক্রেতা আপনার কাছে যে দামে পন্যটি ক্রয় করতে ইচ্ছুক সেই দামে তার পছন্দের পন্যটি কি সরবরাহ করা আদৌ সম্ভব সেটা নিশ্চিত হোন।

কাষ্টমার লক্ষী একটা কথা আছে। লক্ষীকে নিজ পায়ে বিদায় করতে নেই। যেখানে অসংগতি সেখানে লক্ষী থাকে না। আপনার ক্রেতা আপনার কাছ থেকে কোন একটি পন্য ক্রয় করে প্রতারিত হলে পরবর্তীবার সে কোন ভাবেই আপনার কাছ থেকে পন্য ক্রয় করবে না। আপনার ক্রেতাকে নিরপদ রাখুন। কমিটমেন্ট রক্ষা করুন। নির্দিষ্ট সময়ে প্রতিশ্রুত পন্যটি ডেলিভারীর ব্যবস্থা করুন। কোন পন্য ফেরতের বিষয় থাকলে তা হাসিমুখে গ্রহন করুন।

ক্রেতাকে কখনোই ভুলভাল কিছু বোঝানোর চেষ্টা করবেন না। ক্রেতাকে বোকা ভাবা মানে আপনি নিজেই বোকা। আপনার পন্যের কোন একটি বিষয় সম্পর্কে না জানা থাকলে স্পষ্ট ভাবে স্বীকার করে নিন। আপনার ক্রেতা আপনার ষ্পষ্টবাদিতাকে সম্মান করে। কিন্তু প্রতারণাকে কখনোই মেনে নিবে না। কারন তার পকেটের অর্থ খরচ করে সে কখনোই ঠকতে চাইবে না।

ক্রেতার রেফারেন্স অনেক বড় একটি বিষয়। নুতন ক্রেতা খোঁজার সাথে সাথে পুরাতন ক্রেতাদের সাথে সু-সম্পর্ক ধরে রাখুন। নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করুন। কারন তার হয়ত কোন একটি পন্য প্রয়োজন নেই কিন্তু তার পরিচিত অন্য কেউ সেই পন্যটি খুঁজছে। এক্ষেত্রে আপনার নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষার কারনে সেই রেফারেন্সটি পেয়ে যেতে পারেন। আর এ প্রাপ্তি আপনার জন্য বাড়তি কিছুই নিয়ে আসবে।

অতিরিক্ত মুনাফার লোভ না করা সবচেয়ে ভাল হবে। সল্প লাভে পন্য বিক্রয় করুন। কিন্তু অধিক পরিমানে বিক্রয়ের চেষ্টা করুন। অধিক বিক্রয়ের ফলে আপনার মুনাফার গড় অনেক বেশী পরিমান হবে। মিথ্যা প্রতিশ্রুতি না দিয়ে সততা অবলম্বন করুন। কথায় ও কাজে মিল রাখুন। আপনার কথার সাথে কাজের মিল থাকলে আপনার ক্রেতা আপনাকে খুঁজে নিবে তার প্রয়োজনে।

কিছু অসৎ মানুষ পাবেন যারা আপনার লোভনীয় অফারের অপেক্ষায় বসে থাকবে। কিছু জায়গাতে পন্য বিক্রয়ের সুযোগ পেতে হলে অসৎ পথে ছাড়া অন্য পথে যাবার রাস্তা খুঁজে পবেন না। সেক্ষেত্রে আপনাকে এ ধরনের ক্রেতা বর্জন করা সবচেয়ে ভাল হবে। কারন অসৎ পথ কোন ভাল কিছু বয়ে আনবে না। আপনার সাময়িক সুযোগ হাতছাড়া হলেও হয়ত আপনার সততার কারনে আরও বড় কোন সুযোগ আপনাকে আরও বেশী সমৃদ্ধ করবে। সুতরাং সৎ পথে সততার সাথেই এগিয়ে চলুন।

মোটিভেশনাল লেখক
মোঃ মাসুদুর রহমান (মাসুদ)
উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম

Check for details
SHARE